বাংলা সৃজনশীল পদ্ধতির এদিক-সেদিক

পুরোটা পড়ার সময় নেই? ব্লগটি একবারে শুনে নাও!

পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন কিংবা হিসাববিজ্ঞান, অর্থনীতি অথবা সামাজিক বিজ্ঞান, পৌরনীতি পরীক্ষা দিয়ে কিছুটা হলেও শান্তিতে থাকা যায়। এসব বিষয়গুলোর ক্ষেত্রে ভালো পরীক্ষা দিলে আশানুরূপ নম্বর পাওয়া কঠিন কিছু না। অন্যদিকে কিছুতেই শান্তিতে থাকা যায় না বাংলা পরীক্ষা দিয়ে । পরীক্ষার আগের দিন রাত পর্যন্ত জেগে পড়ে, পৃষ্ঠার পর পৃষ্ঠা লিখে সাহিত্য ঝড় তুলেও পরীক্ষার খাতা হাতে নিয়ে হতভম্ব হয়ে যেতে হয়। নৈর্ব্যক্তিক তো তা-ও সয়ে যায়। কিন্তু বাংলা সৃজনশীলে কেন দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়? এর একমাত্র কারণ হলো আমরা অহেতুক সময় নষ্ট করি গৌরচন্দ্রিকার পিছনে। অথচ ছোট কিছু নিয়ম অবলম্বন করে কিন্তু অনায়াসে ভালো নম্বর পাওয়া যায়।

১০ মিনিট স্কুলের পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য আয়োজন করা হচ্ছে অনলাইন লাইভ ক্লাসের! তা-ও আবার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে!

নবম ও দশম শ্রেণির ‘মাধ্যমিক বাংলা সাহিত্য’ বইয়ের একটি সৃজনশীল প্রশ্নর নমুনা দিয়ে সৃজনশীল পদ্ধতিতে বাংলা প্রশ্ন উত্তর দেয়ার হাতেখড়ি শুরু করা যায়।

ঘুরে আসুন: এসএসসি’তে বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়ে নম্বর কীভাবে তুলবো?

উদ্দীপক:

যখন হানাদারবধ সংগীতে

ঘৃণার প্রবল মন্ত্রে জাগ্রত

স্বদেশের তরুণ হাতে

নিত্য বেজেছে অবিরাম

মেশিনগান , মর্টার গ্রেনেড।

ক.  মধ্যরাতে কারা এসেছিল? (জ্ঞানমূলক প্রশ্ন, মান-১)

খ.  বর্ণমালা পথে পথে তেপান্তর ঘুরছিল কেন? (অনুধাবনমূলক প্রশ্ন, মান-২)

গ. উদ্দীপকের অনুভব ‘সাহসী জননী বাংলা’ কবিতার অনুভবের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ- ব্যাখ্যা কর। (প্রয়োগমূলক প্রশ্ন, মান-৩)

ঘ. উদ্দীপকের ভাবনা ‘সাহসী জননী বাংলা’ কবিতার সামগ্রিক পরিচয় নয়- মূল্যায়ন কর। (উচ্চতর দক্ষতা, মান-৪)

কৌশল করে, নিয়ম মেনে একটা সৃজনশীলের উত্তর দিলে দশে অন্তত নয় পাওয়া ঠেকায় কে?

জ্ঞানমূলক প্রশ্নের উত্তর:

জ্ঞানমূলক স্তরের প্রশ্নের উত্তর হবে মৌলিক। এই স্তরের উত্তর দিতে উদ্দীপকের কোনোরকম সাহায্যের প্রয়োজন নেই। এ স্তরের উত্তর একবাক্যে অথবা অল্পবাক্য দিয়ে দেয়াই শ্রেয়। অবশ্যই অবশ্যই এবং অবশ্যই এ স্তরের উত্তর দিতে বেশি সময় নেয়া যাবে না।

অনুধাবনমূলক প্রশ্নের উত্তর:

এই স্তরের উত্তর দিতেও উদ্দীপকের কোন দরকার নেই। এই স্তরে অনুধাবিত ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। দুই নম্বরের জন্য দুই প্যারায় উত্তর লিখতে হবে। উত্তরের প্রথম অংশে থাকবে প্রশ্নের মূল চাহিদা, অর্থাৎ জ্ঞান। এ পর্যায়ে এক বাক্যে কিংবা অল্পবাক্যে প্রশ্নের মূল উত্তর লিখতে হবে। উপরের প্রশ্নটির ক্ষেত্রে উত্তর হবে কিছুটা এরকম-

***পাক হানাদার বাহিনী আমাদের অস্তিত্ব হানির জন্য প্রথমে হাত রেখেছিল আমাদের ভাষায়। বাংলা ভাষার বর্ণমালাগুলোর হারিয়ে যাওয়ার সংশয়ই কবি এখানে ব্যক্ত করেছেন।***

দ্বিতীয় প্যারায় থাকবে অনুধাবন। ছয় থেকে সাত লাইনে জ্ঞানের অংশটিকে ব্যাখ্যা করে লিখতে হবে। ব্যাখ্যা লিখতে গিয়ে উপন্যাস লিখে ফেলি আমরা অনেকেই। এ স্তরে উপন্যাস লিখতে বাকি প্রশ্নগুলো লেখা হয়ে উঠে না। তাই দ্রুত অনুধাবনের উত্তর শেষ করে পরবর্তী প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। জ্ঞানমূলক এবং অনুধাবনমূলক প্রশ্নের উত্তর এক পৃষ্ঠায় দেয়া ভালো। এতে লেখার পরিমাণ সম্পর্কে ধারণা থাকবে এবং পরবর্তী প্রশ্ন লেখার জন্য সময় বাঁচবে।

এবার বাংলা শেখা হবে আনন্দের!

আমাদের প্রতিটি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় বাংলা ভাষা চর্চার গুরুত্ব অপরিসীম!

তাই আর দেরি না করে, আজই ঘুরে এস ১০ মিনিট স্কুলের এক্সক্লুসিভ বাংলা প্লে-লিস্টটি থেকে!

১০ মিনিট স্কুলের বাংলা ভিডিও সিরিজ

প্রয়োগমূলক প্রশ্নের উত্তর:

এই স্তরে মূলত উদ্দীপকের সাথে পাঠ্য গদ্য কিংবা পদ্যের পার্থক্য চাওয়া হয়। তিন প্যারায় উত্তর দিতে হবে এই স্তরে। প্রথম প্যারায় থাকবে প্রশ্ন সম্পর্কে উত্তরদাতার জ্ঞান। নমুনা প্রশ্নে প্রয়োগমূলক প্রশ্নের জ্ঞান স্তরের উত্তর যেভাবে দিলে ভালো হবে-

***প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে বলা যায়, উদ্দীপকের অনুভব ‘সাহসী জননী বাংলা’ কবিতার অনুভবের সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ।***

পরবর্তী প্যারায় থাকবে অনুধাবন। এই স্তরে অবশ্যই, অবশ্যই এবং অবশ্যই উদ্দীপকের কথাবার্তা লেখা যাবে না। ছয় থেকে সাত লাইনের মধ্যে উদ্দীপকের সাথে বইয়ের পঠিত গদ্য কিংবা পদ্যের যে অংশের মিল, সেই অংশের কথা লিখতে হবে। এবং আবারও বলব, এ অংশে উদ্দীপকের কথা লেখা যাবে না।

তৃতীয় বা শেষোক্ত প্যারায় থাকবে প্রয়োগ। প্রয়োগ স্তরে উদ্দীপক এবং গদ্যাংশ বা পদ্যাংশের পার্থক্য দেখাতে হবে। নমুনা প্রশ্নটির উত্তরে যা লেখা উচিত-

***উদ্দীপকে যেমনি হানাদার বাহিনীকে ধিক্কার জানানো হয়েছে, ঠিক তেমনি ‘সাহসী জননী বাংলা’ কবিতায়ও পাক হানাদার বাহিনীর ঘৃণ্য একটি চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।***

এই স্তরের প্রশ্নের উত্তর দেড় পৃষ্ঠায় শেষ করাই শ্রেয়।

কোনো সমস্যায় আটকে আছো? প্রশ্ন করার মত কাউকে খুঁজে পাচ্ছ না? যেকোনো প্রশ্নের উত্তর পেতে চলে যাও ১০ মিনিট স্কুল লাইভ গ্রুপটিতে!

উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নের উত্তর:

উচ্চতর দক্ষতার চার নম্বর তোলা অনেকের কাছেই আকাশ-কুসুম ব্যাপার স্যাপার। তবে একটু কৌশল করে যৌক্তিক কথা লিখলে নম্বর পাওয়া কোনো ব্যাপার না। এই প্রশ্নের উত্তরে মূলত উদ্দীপক ও পাঠ্যের কোনো একটি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে মতামত দেয়া হয়। এই মতামতের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। চারটি প্যারায় প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। প্রথম তিনটি প্যারা হুবহু প্রয়োগমূলক প্রশ্নের মতো করে লিখতে হবে। কিন্তু শেষোক্ত প্যারা বা উচ্চতর দক্ষতা স্তরে মূল মতবাদ লিখতে হবে। যেমন নমুনা প্রশ্নটির উচ্চতর দক্ষতা হবে এরকম-

ঘুরে আসুন: গণিত নিয়ে ভাবনা? আর না!

***সামগ্রিক আলোচনা এবং প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে বলা যায়, “উদ্দীপকের ভাবনা ‘সাহসী জননী বাংলা’ কবিতার সামগ্রিক পরিচয় নয়”- ধারণাটি যথাযথ/যুক্তিযুক্ত/যৌক্তিক।

২, ৩ ও ৪ নম্বর প্রশ্নের উত্তরে প্রতিটি প্যারা বা স্তর লেখার জন্য এক নম্বর দেয়া হবে। কাজেই কেউ যদি দেখো যে এ তিনটি স্তরের কোনো একটিতে তুমি কম পেয়েছো, তাহলে বুঝতে হবে,

১. তুমি একটা প্যারা বা স্তর কম লিখেছো।

২. যেকোনো একটা প্যারা বা স্তরের উত্তর সন্তোষজনক ছিল না।

নিয়ম-কানুন নিয়ে সচেতন থাকতে গিয়ে আবার সময়ের ব্যাপারে উদাসীন হয়ে যাওয়াটা ঘোর বোকামি। প্রশ্নভেদে নিজের মতো করে প্রতি প্রশ্নের জন্য সময় ভাগ করে নিতে হবে, যেটা পুরোপুরিই উত্তরদাতার উপর নির্ভর করে। কৌশল করে, নিয়ম মেনে একটা সৃজনশীলের উত্তর দিলে দশে অন্তত নয় পাওয়া ঠেকায় কে?


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: write@10minuteschool.com

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
What are you thinking?